পালস পোলিও টিকাকরন কর্মসূচী

পালস পোলিও কর্মসূচি

পালস পোলিও কর্মসূচি

আগামি ১০ ই মার্চ জাতীয় পালস পোলিও দিবস। সেই দিন আপনার বাচ্চা কে পোলিও বুথে নিয়ে যান। ০ থেকে ৫ বছরের সমস্ত বাচ্চা কে দু ফোটা পোলিও খাওয়ান।

মনে রাখবেন পোলিও একটি মারাত্মক রোগ। পোলিও রোগ নির্মূল করতে অবশ্যই নিকটবর্তী পালস পোলিও বুথে নিয়ে যান।

১) কেন সরকার বারবার পোলিও টিকা সংক্রান্ত অভিযান চালাচ্ছে?

ব্যক্তিগত সুরক্ষার জন্য প্রত্যেক শিশু কে জীবনের প্রথম বছরে অন্তত ৩ টি পোলিও টিকা দিতে হবে। যা নিয়মিত টিকাকরনের মধ্যে পড়ে। বাচ্চার পঙ্গু হওয়ার সম্ভবনা কে দূর করতে একমাত্র উপায় হল অল্প দিনের ব্যবধানে ৫ বছরের কম বয়সের শিশুকে বারবার পোলিও টিকা খাওয়ানো এবং প্রতি বছর এই পদ্ধতির পুনরাবৃত্তি করা যা পরিবেশে মারাত্মক পোলিও ভাইরাস ছড়ানো রোধ করে।

এই জাতীয় পালস পোলিও টিকাকরন দিবসে প্রত্যেক ৫ বছরের কম বয়সী শিশু জাতে পোলিও টিকা খায় তা সুনিশ্চিত করতে হবে, তা না হলে অসুরক্ষিত শিশুরা সেই এলাকায় পোলিও ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পঙ্গু হয়ে জেতে পারে।

যদি একবার পোলিও রোগ নির্মূল করা যায় তাহলে কোনও শিশুকে জিবনে আর কখনও এই টিকা নিতে হবে না।

২) এই টিকা খেলে কি সন্তান উৎপাদন কমা যায়?

পোলিও টিকা সবচেয়ে নিরাপদ টিকা গুলির মধ্যে একটি। এই টিকা বিগত ৩০ থেকে ৩৫ বছর ধরে বেবহার করা হচ্ছে। বারবার পোলিও টিকা খাওয়ালে পোলিও হওয়ার সম্ভবনা কমে। এটি একটি গুজব যে পোলিও টিকা খাওয়ালে বাচ্চা উৎপাদন কমে, এতে মোটেই বাচ্চা উৎপাদন কমে না। আমেরিকাতে পোলিও টিকার মাধ্যমে পোলিও রোগ নির্মূল করা হয়েছে। এই টিকা ভারতবর্ষে সমস্ত শিশুর সুস্থ ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য কাজ করে।

৩) পোলিও টিকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া?

পোলিও টিকার কন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই এবং এই টিকা খেলে কন শিশু অসুস্থ হবে না।

৪) সদ্যোজাত বাচ্চাকে এই টিকা খাওয়ানো যায়?

হ্যাঁ, নবজাতক কেও পোলিও টিকা অবশ্যয় খাওয়াতে হবে। যদি শিশুটি মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে জন্মগ্রহণ করেছে তাহলেও তাকে পোলিও টিকা খাওয়াতে হবে।

 

এক গ্লাস ঢেঁড়সের জল রোধ করবে ডায়াবেটিস!

 

৫) কেন পোলিও টিকা নেওয়ার পরও শিশুর পোলিও হচ্ছে?

অন্যান্য সব টিকার মতই পোলিও টিকাও ১০০% কার্যকারী নয়। পোলিও টিকা খেলে বেসির ভাগ বাচ্চার শরীরে পোলিও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সৃষ্টি হয় কিন্তু কিছু সংখ্যক বাচ্চার ক্ষেত্রে দেখা যায় যে বারবার পোলিও টিকা নেওয়ার পরও তারা সুরক্ষিত হচ্ছে না। আর এই সমস্ত বাচ্চারা কোনভাবে পোলিও ভাইরাসের সংস্পর্শে এলে তাহলে অনেক সময় তাদের পোলিও হয়ে থাকে। তাই এই সমস্ত বাচ্চাদের সম্পূর্ণ সুরক্ষার জন্য এবং পরিবেশ থেকে মারাত্মক পোলিও ভাইরাসকে সম্পূর্ণ রুপে নির্মূল করতে বার বার জাতীয় টিকাকরন দিবস ও অতিরিক্ত জাতীয় টিকাকরন দিবস পালন করতে হবে। যদি কোনরকম ভাবে অল্প মাত্রাই শিশু এই টিকাকরন থেকে বাদ পড়ে যায় তাহলে তারাই সমাজে বা পরিবেসে এই মারাত্মক পোলিও ভাইরাস ছড়াবে এবং অসুরক্ষিত বাচ্চাদের কে পোলিও রোগ দ্বারা সংক্রমিত করবে এবং এর ফলে পোলিও আক্রান্ত ঐ বাচ্চা পঙ্গু হয়ে পড়বে।

পালস পোলিও কর্মসূচি

৬) ডায়রিয়া বা অন্য কন অসুখে ভুগছে এই রকম বাচ্চা কে পোলিও টিকা খাওয়ানো যায় কি না?

এই টিকা অবশ্যয় সমস্ত শিশুকে খাওয়াতে হবে, যদি সে ডায়রিয়া বা অন্য কন অসুখে ভুগছে।

৭) অ্যান্টিবায়টিক চলছে এমন শিশু?

অ্যান্টিবায়টিক বা অন্য সমস্ত ঔষধ এর সাথে এই পোলিও টিকা খাওয়ানো যাবে। তাই অবশ্যয় আপনার শিশুকে নিকটবর্তী পোলিও বুথে নিয়ে গিয়ে দু ফোঁটা পোলিও খাওয়ান।

৮) পোলিও মাত্রা বেসি হলে কি হবে?

অতিরিক্ত মাত্রার পোলিও খেলে বাচ্চার ক্ষতি হওয়ার কোন সম্ভবনা নেই। বারবার পোলিও টিকা খাওয়ালে বাচ্চার কোন ক্ষতি হবে না।

৯) কত দিন এই কর্মসূচি চলবে?

এই বিশেষ পালস পোলিও কর্মসূচি আগামী কয়েক বছর চলবে যতক্ষণ না ভারতবর্ষ থেকে পোলিও রোগ নির্মূল হচ্ছে এবং যতক্ষণ না সারা পৃথিবী থেকে এই রোগ একেবারে নির্মূল হচ্ছে।

তাই আগামী ১০ ই মার্চ ২০১৯ রবিবার নিকটবর্তী পোলিও বুথে আপনার বাচ্চাকে নিয়ে গিয়ে ২ ফোঁটা পোলিও খাওয়ান আপনার বাচ্চার এবং পুর সমাজের সুরক্ষার জন্য।


যেগুলো আপনার একান্ত জানা দরকার 

১) বুক জ্বালা? অম্বল? বাড়িতে থাকা মাত্র ৪ টি উপাদানই করতে পারে এর সমাধান।

২) হঠাৎ করে প্রেসার কমে বা বেড়ে গেলে কি করবেন?

Nokia Lowest Priced Smartphone- Nokia 2.1

One Comment

  1. Sk Nuramin March 29, 2019 Reply

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *