আপনি কি একদম রোগা? তাহলে জেনে নিন ওজন বৃদ্ধি করার কিছু উপায়।


ওজন বৃদ্ধি করার কিছু উপায়


আমরা বা আমাদের আশেপাশের অনেক মানুষ ওজন কমানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের উপায় অবলম্বন করে। কিন্তু তার মাঝে এমন কিছু মানুষ আছে যারা ওজন বাড়ানোর জন্য অনেক কিছু করে থাকেন। বর্তমানে এমন মানুষও আছে যারা কম খাই কিন্তু ওজন হুড়হুড় করে বেড়ে চলে। আবার এমন অনেকেই আছেন যারা প্রচুর খায় কিন্তু ওজনের কোন হেরফের হয় না বলেই চলে, সেই রোগা পাতলা থেকেই যায়।

ওজন কমাতে বহু মানুষের চেষ্টার যেমন কমতি নেই তেমনি কিছু মানুষ ওজন বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ধরণের চেষ্টা করে চলেছেন। ওজন বাড়ানো যেমন কঠিন তেমনি ওজন ঝরানোও একটি কঠিন কাজ। যারা শুকনো, রোগা, পাতলা এবং মোটা হবার চেষ্টা করছেন তারা এই নিয়ম গুলি ঠিক মত মেনে চললে খুব সহজেই মাসে ২ থেকে ৫ কিলো ওজন বাড়াতে পারবেন। আমাদের দেহে প্রায় প্রতিদিন ২৫০০ ক্যালোরি প্রয়োজন হয়ে থাকে। যদি আমরা এই প্রয়োজনের তুলনায় বেশী পরিমানে ক্যালোরি গ্রহন করি তাহলে সেই ক্যালোরি ওজন হিসাবে আমাদের শরীরে জমা হয়। অতিরিক্ত প্রায় ৭৫০০ ক্যালোরি গ্রহন করা হলে দেহের ওজন প্রায় ১ কেজি বৃদ্ধি পায়। বিশেষজ্ঞদের মতে কিছু কিছু খাবার রয়েছে যা খাওয়া হলে কিছু সময়ের মধ্যে আপনার ওজন বাড়বে। আবার ওজন বাড়াতে উচ্চ ক্যালোরি যুক্ত খাবার যেমন- ছোলা, কিশমিশ, বাদাম বা দুগ্ধ জাতীয় খাবার খাওয়া একান্তই প্রয়োজন।

ওজন বৃদ্ধি করার উপায়


আরও পড়ুনঃ- কোষ্ঠকাঠিন্য রোগের লক্ষণ, কারন, চিকিৎসা?


রোগা, পাতলা, শুকনো শরীর হলে দেখতে ভীষণ বাজে লাগে এবং বিভিন্ন সময় সমস্যা হয়। আর সমস্যা তখনি হয় কেও কোন পুলিস বা আর্মিতে চাকরির জন্য পরীক্ষা দিতে যায়। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কি করলে এবং কি কি খাবার খেলে আপনার ওজন দ্রুত বাড়বে।


Dual Display Smartphone | Vivo NEX


১) বেশি করে তরল জাতীয় খাবার খানঃ

তরল জাতীয় খাবার ক্ষুধা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। তাই কিছুক্ষণ পর পর যেকোনো তরল জাতীয় খাবার খেতে পারেন। এতে আপনার ক্ষুধা দ্রুত লাগবে। তবে সবসময় মনে রাখবেন কোন ভারি খাবার খাওয়ার আগে বা মাঝখানে কখনই জল পান করবেন না। খাবার খাওয়ার আগে বা মাঝখানে জল পান করলে আপনার ক্ষুধা কমে যাবে এবং ভারি খাবার খাওয়ার রুচি অনেকটা কমে যাবে।

২) অস্বাস্থ্যকর খাবার থেকে দূরে থাকুনঃ

হয়ত আপনি প্রচুর পরিমানে খাচ্ছেন তবুও আপনার ওজন ঠিকমত বাড়ছে না। এর কারন হল আপনি প্রচুর পরিমানে খাচ্ছেন ঠিকই কিন্তু নিয়ম মত সঠিক স্বাস্থ্যকর খাবার খাচ্ছেন না। আপনি যদি ভেবে থাকেন পেট ভর্তি খাবার খেলেই ওজন বেড়ে যাবে। তাহলে আপনি ভুল ভাবছেন। কারন এটা সেটা খেলেই পেট ভরে যাবে। আপনাকে উপযুক্ত খাবার সঠিক পরিমানে খেতে হবে। প্রতিদিন আমাদের শরীরে একটি নির্দিষ্ট পরিমানে কার্বন, প্রোটিন ও ফ্যাট এর প্রয়োজন হয়। এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন দুগ্ধজাত খাবার, বাদাম, ছোলা খেতে হবে।

ওজন বৃদ্ধি করার উপায়

প্রোটিন শরীরের পেশী কে শক্তিশালী করে ও দেহের ওজন বৃদ্ধি করে। তাই প্রত্যেক দিন নির্দিষ্ট পরিমানে মাংস খান। প্রতিদিন ডিম, পনির, শাকসবজি ও পর্যাপ্ত পরিমানে রুটি, আলু ও ভাত খান। বসা ভাত ওজন বাড়াতে খুবই সহায়তা করে। কারন এর মধ্যে প্রচুর পরিমানে ক্যালোরি থাকে। এছাড়া আরও অনেক খাবার আছে যেগুলি আপনি নিয়ম করে খেতে পারেন। সবসময় চেষ্টা করবেন স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া যা আপনার সরিরি কে সুস্থ সবল রাখবে।

৩) সঠিক নিয়মে খাবার খানঃ

আপনি খাবার খাচ্ছেন ঠিকই কিন্তু কোনো নিয়ম মেনে খাচ্ছেন না এতে আপনার শরীরে কোনো কাজই হবে না। শত চেষ্টা করলেও আপনার ওজন কোনো রকম ভাবেই বাড়বে না। আপনি নিয়ম করে একটি খাবার তালিকা তৈরি করুন এবং  সেটি রোজ ঘড়ি ধরে পালন করুন দেখবেন আপনার ওজন ঠিকই বাড়ছে। মোটামুটি ৪ থেকে ৫ সপ্তাহের মধ্যে একটি ইতিবাচক ফলাফল আপনি পাবেন। ওজন বাড়ে এমন খাবার গুলো প্রতিদিন খাবেন ও পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুমাবেন। অনেকের রাত জাগার মত বদ অভ্যাস আছে। এই অভ্যাস পরিত্যাগ করুন এবং সঠিক সময়ে ঘুমান।

৪) ঘন ঘন খাবার খানঃ

যদি আপনি আপনার ওজন বাড়াতে চান তাহলে প্রতিদিন ৫ থেকে ৬ বার পর্যাপ্ত পরিমাণে স্বাস্থ্যকর খাবার খান। আমরা খুব বেশী হলে সারাদিনে ৩ থেকে ৪ বার খেয়ে থাকি। আপনি পারেন তো দিনে ৫ থেকে ৬ বার খান কিন্তু পরিমাণটি নির্দিষ্ট করে। এতে আপনার খাবার খেতে কোনো অসুবিধা বা সমস্যা হবে না। আম, কলা, আপেল ইত্যাদি ফল বেশি পরিমাণে খাবেন। এর পাশাপাশি অন্যান্য ক্যালোরিযুক্ত খাবারও খাবেন। কিন্তু আপনি যত পরিমাণে জাঙ্ক ফুড রোজ খাবেন তার চেয়ে বেশী পরিমানে প্রোটিন আপনার দেহ থেকে বেরিয়ে যাবে। তাই সর্বদা জাঙ্ক ফুড থেকে দূরে থাকুন। কাঁচা বাদাম, বিভিন্ন ধরণের মিষ্টি নিজের ঘরে বানিয়ে খান।

৫) ধূমপান(Smoking):

ক্যানসার

ধূমপান সম্পর্কে আমরা সবাই অবগত আছি।  ধূমপান মানুষকে শারীরিকভাবে অসুস্থ এবং পঙ্গু করে তোলে। ধূমপান স্বাস্থ্যের ক্ষতিসাধন এর জন্য সবথেকে বেশী দায়ী। দেখা গেল যে আপনি ওজন বাড়ানোর জন্য যতটা প্রয়োজন নিয়ম করে খাদ্য গ্রহণ করলেন কিন্তু এর পাশাপাশি ধূমপান(Smoking) চালিয়ে গেলেন নিয়মমত। এতে আপনার শরীরের কোনো ধরনের ইতিবাচক ফলাফল আসা তো দূরের কথা আপনার আরও সমস্যা বাড়বে। তাই আপনি যদি ধূমপায়ী হয়ে থাকেন আর শরীরের ওজন বাড়াতে চান তাহলে ধূমপান পুরোপুরি ভাবে ত্যাগ করুন। ধূমপানও(Smoking) শুধু শরীরের ক্ষতি করে না মনেরও ক্ষতি করে। ধূমপান করলে মানুষ চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। আর চিন্তাগ্রস্ত মানুষের ওজন বাড়ার সম্ভবনা অনেক কম।


আরও পড়ুনঃ- ধূমপান(Smoking) ফুসফুসের ক্যানসারের কারন।


ওজন বৃদ্ধি করার উপায়

৬) শারীরিক ব্যায়ামঃ

অবাক লাগছে? ভাবছেন আপনি রোগা পাতলা মানুষ আবার ব্যায়াম? তাহলে আপনি জেনে রাখুন, এমন কিছু বিশেষ ব্যায়াম আছে যা শরীরের পেশী গঠন করে এবং দেহের ওজন বাড়ায়। তাছাড়া ক্ষুধাও সৃষ্টি করে। নিয়মিত জিমে যাওয়া শুরু করুন, জিম শিক্ষকের কথা নিয়মত মেনে চলুন। এতে আপনার চমৎকার শরীর তৈরি হবে। যদি আপনি শুধু ক্যালরিযুক্ত খাবার খেয়েই গেলেন আর কোনো ধরনের ব্যায়াম করলেন না তাহলে আপনার দেহের বেশ কিছু অংশে অতিরিক্ত মেদ জমা হবে। আর সবথেকে বেশী মেদ জমা হবে আপনার তলপেটে যার ফলে আপনার ভুঁড়ি বেরিয়ে আসবে। যা আপনার জন্য খুবই বেদনাদায়ক হবে। সেই জন্য যতটা পারেন শারীরিক ব্যায়াম করুন। এর ফলে আপনার দেহের অতিরিক্ত মেদ নিঃসরণ করে একটা ভালো ওজন পেতে পারবেন। তাছাড়া আপনি ঘরেও নিয়মমতো শারীরিক ব্যায়াম করতে পারেন।

ওজন বাড়ানোর করার উপায়

দ্রুত ওজন বাড়াতে প্রত্যেক দিনের খাবার তালিকায় রাখতে হবে চর্বিযুক্ত মাছ, মাখন, আলু, বাদাম ইত্যাদি। এছাড়া ওজন বাড়ানোর জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার হল পিনাট বাটার। এছাড়া প্রতিদিন ২ থেকে ৩ টি করে ডিম এবং ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম করে বাদাম খান। ওজন বাড়ানোর জন্য প্রতিদিন টিফিনে চিজ খান। কলা একটি ঘরোয়া উপায় যা ওজন বাড়াতে মোক্ষম ভুমিকা পালন করে। তাই রোজ ২-৪ টে করে কলা খান।

৭) স্ট্রেস থেকে মুক্তি

রোগা পাতলা হওয়ার বা দেহের ওজন কমে যাওয়ার একটি অন্যতম ও প্রধান কারণ হল স্ট্রেস, যা এখন আমাদের নিত্য সঙ্গী। তাই ওজন বৃদ্ধি করতে চাইলে প্রথমে স্ট্রেস বা অতিরিক্ত কাজকর্মের চাপ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে হবে। কীভাবে মুক্ত থাকবেন, খুবই সহজ প্রত্যেকদিন ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় বের করে মেডিটেশন করুন। এতে আপনার মস্তিস্ক রিল্যাক্সড বা আরাম হবে। এছাড়া প্রতিদিন দুপুরে খাবার পর আরাম করে ১-২ ঘন্টা ঘুমিয়ে নিন। এতেই আপনি খুব তাড়াতাড়ি ফল পেয়ে যাবেন।


New Huawei P30 Smartphone Review, & Features


বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

ওজন বাড়ানোর জন্য কোন ধরণের ঔষধ বা মেডিসিন নিবেন না।


Honor View 20 | World’s 1st 48MP rear camera & 25MP in Front camera


9 Comments

  1. lpe88 apk April 3, 2019 Reply
  2. rollex11 download April 8, 2019 Reply
  3. Denice April 10, 2019 Reply
  4. rollex11 download April 12, 2019 Reply
  5. play8oy casino April 12, 2019 Reply
  6. lpe88 April 15, 2019 Reply
  7. live22 apk April 20, 2019 Reply
  8. playboy888 April 20, 2019 Reply
  9. lpe88 download April 22, 2019 Reply

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *